Home | About Us | Privacy Policy | Terms & Conditions | Submit Your Article | Advertise | Contact
Showing posts with label NEWS & ARTICLE. Show all posts
Showing posts with label NEWS & ARTICLE. Show all posts

Friday, 11 September 2020

রিভিউ পেপার কীভাবে লিখবেন? How to write a Review Paper?

রিভিউ পেপার লেখার নামে আমরা প্রায়ই যে কাজটা করে থাকিঃ অনেক গুলো প্রাসঙ্গিক (relevant/related) পেপার পড়ে তার একটা সারাংশ লিখি। যা আসলে রিভিউ পেপার না বরং থিসিস লিটারেচার কিংবা ম্যাগাজিন আর্টিকেল হয়। শুরুতেই একটা কথা জেনে রাখা ভালো, আমরা কখন লিখবো রিভিউ পেপার বা কখন লিখা উচিৎ। কোন একটি বিষয়ে বিস্তর গবেষণালব্ধ জ্ঞান থাকলে অর্থাৎ উক্ত বিষয়ে আপনি পুরোপুরি পারদর্শী হলেই কেবল রিভিউ করতে পারবেন বা করা উচিৎ। নচেৎ ভুল বা অসমাপ্ত বা আধাআধি রিভিউ হবে। ভালো জার্নালে পাবলিশ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই বিষয়টা খেয়াল রাখতে হবে।

Wednesday, 9 September 2020

Assessing the impact of COVID-2019 on Foreign Direct Investment (FDI) of the Textile and Economic sector: A perspective study

Md. Nurun Nabi1* 
PhD Fellow, Huazhong University of Science and Technology(HUST), Wuhan, China, and Assistant Professor, Bangladesh University of Textiles
Mst. Marium Akter2
Lecturer, Accounting, Sonargaon University; Bangladesh

Abstract
This study represents the impact of COVID 2019 on the foreign direct investment of the textile and economic sector.  Bangladesh is a rapidly economically growing country and proportionately depends on the Foreign Direct Investment (FDI). This pandemic situation not only affects the Ready-made garments but also affects the other economic sectors like agro-processing, pharmaceuticals, and chemicals, ICT and telecommunication sectors, etc. the FDI and GDP are decreasing drastically. Now the largest FDI investor country is switching from the host country to another country. The different countries like India, Japan, Vietnam are searching for alternatives sources of their marketing and production. Bangladesh is also searching for a new area where they may search for new raw materials. The Foreign Direct Investment (FDI)is decreasing due to pandemic across the country. The BIDA  and BEPZA Formulate some action plan to fight against the Coronavirus and attract foreign direct investment. Different lucrative and attractive packages were declared by the government of Bangladesh.

Key Words: COVID-19, Foreign Direct Investment (FDI), Ready made garments (RMG), Economic sectors, etc. 

Wednesday, 19 August 2020

What is the Research Project Proposal?

Research Proposal is a document prepared by the researcher/scientist/academics mentioning the new ideas on a certain area/topic to be investigated for finding the feasibility and often requesting for a sponsor. A research proposal proposes a research Project to the approvers/donners requesting for funding.

Why need a Proposal Written?
1. This allows peer review, which brings credibility to the proposal;
2. Approvers/donners needs to review before approval;
3. A common understanding among implementers;
4. Quality data collection by the enumerators;
5. Saves resources: person, time and money;
6. Facilitates subsequent writing of the research report;
7. etc. 

Wednesday, 12 August 2020

বাংলাদেশে তুলা উৎপাদনের ইতিহাস ও ধ্বংসের কারণ

বাংলাদেশে তুলা উৎপাদনের ইতিহাস ও ধ্বংসের কারণ | Cotton Fibres
In fiscal 2018-19, Bangladesh imported 6.9 million bales of cotton from the world to meet its demand. The country annually spends US$ 3.5 billion in importing cotton. Source: The Financial Express

ভি. আই. লেনিন তার "Imperialism,the highest of capitalism" গ্রন্থে বলেছেন পুঁজিবাদী সমাজে কোনো বিপর্যয় কিংবা দুর্ভিক্ষ দেখা দিলে বড় এন্টারপ্রাইজগুলো একই সাথে পণ্যের কাঁচামালের মূল্য এবং পণ্যের বাজার মূল্য নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করে, ফলে যেসকল ছোট ও মধ্যম এন্টারপ্রাইজগুলো ঐ পণ্যের প্রক্রিয়াজাতকরণের সাথে জড়িত তারা পরে যায় বিপদে; অনেকসময় দেউলিয়াও হয়ে যায়। উদাহরণস্বরূপ, সমগ্র গার্মেন্টস শিল্পের কাঁচামাল কিংবা গার্মেন্টসের বাজার মূল্য কোনোটার সাথেই বাংলাদেশ জড়িত নয়, অর্থাৎ বাংলাদেশ কেবল গার্মেন্টস প্রক্রিয়াজাতকরণ যেমন নিটিং, ডাইং, সুইং ইত্যাদি শ্রমনির্ভর কাজের সাথে জড়িত। ফলে বিশ্ববাজারে গার্মেন্টসের কাঁচামাল যেমনঃ তুলার দাম বাড়িয়ে দিয়ে এবং গার্মেন্টসের বাজার মূল্য কমিয়ে দিয়ে বাংলাদেশের শ্রমের মূল্য অনায়াসেই নিয়ন্ত্রণ করা যায়, যা বর্তমান কভিড মহামারীর সময়ে অনেকাংশেই ঘটেছে। এর ফলে দেশের গার্মেন্টস শিল্প এক মহা বিপদের মধ্যে পড়েছে, শ্রমিকদের বেতন দিতে হিমশিম খেতে হয়েছে এবং দেশে বেকারত্বও অনেক বেড়েছে। প্রশ্ন হচ্ছে বাংলাদেশ কি গার্মেন্টস শিল্পে আজীবন শ্রম নির্ভর হয়েই থাকবে নাকি টেকসই হবার জন্য কাঁচামাল উৎপাদন শুরু করবে? কিংবা কারা কাঁচামাল আর গার্মেন্টসের বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে?

Thursday, 30 July 2020

Impact of COVID-19 on Textile & Apparel Industry Sustainability

Md. Nurun Nabi
Ph.D. fellow, Huazhong University of Science and Technology(HUST), Wuhan, China, and Assistant Professor, Bangladesh University of Textiles

Sustainability of the garments factory is the most significant issue of the present COVID-19 Pandemic situation since the global business environment is changing rapidly with requirements of the need and wants. Now the discussions are changing as the environment of business is changing because of the unpredictability of COVID-19. Sustainability is the most popular word of the present times as well as it was. COVID 19 or Novel coronavirus was firstly traced in the human body on 31, December 2019 in Wuhan, Hubei, China. Now, this novel coronavirus spread all over the world. On behalf of the World Health Organization (WHO) Director-General, Dr Tedros Adhanom Ghebreyesus declared coronavirus disease (COVID-19) Pandemic on March 11. The number of affected countries and regions is increasing day by day. According to the World Health Organization, Institute of Epidemiology, Disease Control and Research, Bangladesh have 232,194 confirmed infections and 3,035 people have died so far from the coronavirus. Many people have recovered from this disease. The total healing number is 130,292.

Textile & Apparel Industry Sustainability - Texpedia

Tuesday, 28 July 2020

ব্যাংক জব প্রিপারেশন | সরকারি ব্যাংকের প্রিপারেশন!

Md Mayeen Uddin, BBA

Dept. of International Business, University of Dhaka.

জব সিকিউরিটি, ইনসেন্টিভ, পেনশন সুবিধা, হাউজ বিল্ডিং লোন সুবিধা, এক্সিকিউটিভ কার লোন সুবিধা ইত্যাদি কারণে অনেকেই সরকারি ব্যাংকে চাকরি করতে চান। তাছাড়া যোগ্যতা থাকার পরও অনেকে প্রাইভেট ব্যাংকে এক্সাম দেয়ারই সুযোগ পান না। তাই সকলের জন্য একটি কমন চাকরির প্ল্যাটফর্ম হলো সরকারি ব্যাংক। তাই এখানে তুলনামূলক প্রতিযোগিতাও একটু বেশি' ই হয়। সবগুলো সরকারি ব্যাংক ছাড়াও পূবালী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, ইসলামি ব্যাংক সাধারণত একই ধরনের প্রশ্নের প্যাটার্নে নিয়োগ পরীক্ষা নিয়ে থাকে।

 আবেদনঃ বাংলাদেশ ব্যাংকের জব সাইটে সবগুলো সরকারি ব্যাংকের আবেদন নেওয়া হয়। গত কয়েক বছর ধরে এক সাথে কয়েকটি ব্যাংকের আবেদন নেওয়া হয়ে থাকে। প্রথমে সিনিয়র অফিসার, এরপর অফিসার এবং অফিসার ক্যাশে আবেদন নেওয়া হয়। বাংলাদেশ ব্যাংক পরীক্ষা এবং নিয়োগও সেই সিরিয়ালে' ই দেওয়ার চেষ্টা করে।

 আবেদনের যোগ্যতাঃ যেকোনো বিষয়ে ৪ বছরের অনার্স থাকতে হবে। এস.এস.সি, এইচ.এস.সি এবং স্নাতকের যে কোনো একটিতে প্রথম শ্রেণী থাকতে হয়, তবে কোন পরীক্ষায় ৩য় শ্রেণী থাকলে আবেদন করার সুযোগ থাকে না। আবেদন করার জন্য সাধারণত ১ মাস সময় দেওয়া হয়।

 আবেদন স্ক্রিনিংঃ আবেদন করার পর ভুয়া ছবি/সিগনেচার/তথ্য দিয়ে আবেদনকারীদের আবেদন স্ক্রিনিং করে থাকে। তবে যদি কেউ সঠিক ছবি, সিগনেচার এবং তথ্য দিয়ে আবেদন করে থাকে তাহলে তাকে বাদ পরার কোন সম্ভাবনা নেই।

 প্রবেশপত্রঃ আবেদন শেষ হওয়ার ৩ মাস পর সাধারণত অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করার নোটিশ দেওয়া হয়। অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করার জন্য সাধারণত ২০ দিন সময় দেওয়া হয়।

 টেন্ডারঃ অ্যাডমিট ডাউনলোড করার সময় শেষ হওয়ার পর যতজন প্রার্থী অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করেছেন তাদের জন্য পরীক্ষার আয়োজন করতে টেন্ডার আহ্বান করা হয়। বর্তমানে সাধারণত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্টস ফ্যাকাল্টি, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ, বিজনেস ফ্যাকাল্টি এবং আহসান উল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় টেন্ডার জমা দিয়ে থাকে। তবে শেষ কয়েক বছরে সবচেয়ে বেশি টেন্ডার পেয়েছে আহসান উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়। এছাড়া ঢাবির আর্টস ফ্যাকাল্টিও বেশ কয়েকটি এক্সামের দায়িত্ব পেয়েছিল।

ব্যাংক জব প্রিপারেশন | সরকারি ব্যাংকের প্রিপারেশন!

Friday, 24 July 2020

বিসিএসে টেক্সটাইল ক্যাডার এখন সময়ের চাহিদা মাত্র

ইঞ্জি: ফয়সাল রিশাদ
বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় (৩৬তম ব্যাচ)

বাংলাদেশের প্রায় আশিভাগ অর্থনীতি কোনো না কোনো ভাবে বস্ত্র শিল্পের উপর নির্ভরশীল। এই বস্ত্র শিল্পে একজন শ্রমিকের নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো থাকলেও একজন বস্ত্র প্রকৌশলী কতো বেতনে ফ্যাক্টরিতে চাকরি শুরু করবেন তার কাঠামো কোনো এক অজানা কারণে আজ পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়নি। বস্ত্র প্রকৌশলীদের বেতন কাঠামো বেসরকারি খাতে  কিরূপ হবে তা তুলনা করা যেতো যদি সরকারি খাতে বস্ত্র প্রকৌশলীদের জন্য কোনো পদ থাকতো। সেক্ষেত্রে প্রতিযোগিতার কারণে বেসরকারি বেতন কাঠামো অবশ্যই সরকারি বেতন কাঠামো থেকে বেশী হতো, কিন্তু যেহেতু সরকারি কোনো পদ বস্ত্র প্রকৌশলীদের জন্য নেই সেহেতু এ সুযোগে গার্মেন্টস মালিকরা বস্ত্র প্রকৌশলীদের জন্য কোনো নির্দিষ্ট বেতন কাঠামো তৈরি করেন নি। ফলে স্বল্প বেতনে একজন বস্ত্র প্রকৌশলীকে চাকরি শুরু করে বছরের পর বছর সে চাকরি টিকিয়ে রাখতে হয় এবং অন্যান্যদের সাথে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হয়। বর্তমানে বেসরকারি খাতে চাকরির শুরুতে যে বেতন বস্ত্র প্রকৌশলীদের প্রদান করা হয় তা সরকারি দশম গ্রডের বেতন কাঠামোর চেয়েও কম যা অন্যান্য প্রকৌশলীদের বেতনের সাথে অতুলনীয়।

Textile BCS Cadre | Texpedia

Thursday, 23 July 2020

Impact of COVID-19 on the Textile & Apparel Industry

Md. Nurun Nabi 
PhD fellow, Huazhong University of Science and Technology(HUST), Wuhan, China, and Assistant Professor, Bangladesh University of Textiles.

COVID 19 or Novel coronavirus was firstly traced in the human body on 31, December 2019 in Wuhan, Hubei, China. Now, this novel coronavirus spread all over the world. Almost 206 countries and regions were affected by this novel coronavirus. On behalf of the World Health Organization (WHO) Director-General, Dr Tedros Adhanom Ghebreyesus declared coronavirus disease (COVID-19) Pandemic on March 11. The number of affected countries and regions is increasing day by day. According to the World Health Organization, Institute of Epidemiology, Disease Control and Research dated 23 July 2020, Bangladesh has 216,110 confirmed infections and 2801 people have died from the coronavirus. Many people have recovered from this disease. The total healing number is 119,208.  

On 1 April 2020, the government cancelled all public programs marking Pahela Baishakh, the Bengali New Year, to avoid mass gatherings as part of its efforts to contain the spread of the novel coronavirus. However, Our governments are trying best and I would like to congratulate Our Honorable Prime Minister for her imperative and assertive decisions regarding control, supervision, and practical initiative. The government requested the people to stay at home and enjoy the programs online at the live telecast. 

Monday, 6 July 2020

GRE Overview for Higher Study in the USA

Engr. Md. Rashedul Hasan
B.Sc. in Textile Engineering (33rd Batch-BUTEX)

The USA is called a dream country for higher study especially – Masters and PhD. A plethora of researches are conducted every day in every discipline. So, those who want to devote themselves in research or who want to get a search of a new meaning of life through research should go to the USA not only to develop themselves but also to contribute to introduce a new peaceful sustainable world. Though most of the students in Bangladesh know the opportunity of studying in the USA, every year very handful of students go to the USA. 

GRE Exam Details for Higher Study in the USA | Texpedia

Friday, 3 July 2020

দেশের সোনালী আঁশ-পাট আজ বিলুপ্ত প্রায়

ইঞ্জি: ফয়সাল রিশাদ
বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় (৩৬তম ব্যাচ)

পাট শিল্পের আজ যায় যায় অবস্থা। এক সময়কার প্রধান অর্থকরী ফসল পাট রপ্তানির প্রাপ্ত অর্থের সিংহভাগ পশ্চিম পাকিস্তান নিয়ে যেতো বলে আমাদের কতোই না ক্ষোভ ছিলো!! অথচ পাকিস্তান থেকে আলাদা হবার পর এই পাট শিল্পের অবনতি ছাড়া অগ্রগতি কখনো হয় নি৷ এর কারণ হচ্ছে পাট মুক্তবাজারে তুলা, প্লাস্টিক, নাইলন ইত্যাদির সাথে প্রতিযোগিতা করে টিকতে পারেনি। পাটকে প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব কার? কোনো দেশের নিজস্ব কাঁচা মালকে ব্যাবহার উপযোগী করে বাজারে টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব অবশ্যই সে দেশের ইঞ্জিনিয়ারদের। দুঃখের সাথে বলতে হয় আমাদের অর্থনীতির চালিকা শক্তি বস্ত্র শিল্পের কাঁচামাল "তুলা" আমাদের দেশে উত্পাদন করতে এবং যে কাঁচামাল দেশে সহযেই উত্পাদিত হয় সেই "পাট"কে প্রতিযোগিতার বাজারে ব্যাবহার উপযোগী করে গড়ে তুলতে আমাদের ইন্জিনিয়াররা সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে, অবশ্যই সেই ইন্জিনিয়াররা টেক্সটাইল ইন্জিনিয়ার ছাড়া আর কেউ নয়। অবাক করা বিষয় হলো দেশী কাঁচামাল বাদ দিয়ে অন্যে দেশের কাঁচামালকে প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রাখার জন্য আমাদের দেশের ইন্জিনিয়াররা রাত দিন কতো পরিশ্রম করে যাচ্ছে!
দেশের সোনালী আশ-পাট আজ বিলুপ্ত প্রায়। Texpedia

Thursday, 2 July 2020

Top Listed Textile Blogs and Websites on the Web

1. Textile Today
Textile Today is a regular publication of Amin & Jahan Corporation Ltd. It’s a comprehensive magazine for textile, apparel & fashion industry. From its inception Textile Today has already created a good impression and a strong reputation in the global market. It has already published a number of researchpapers, technical articles and market reports. Textile Today is working to guide the industry so that policymakers can make their decisions fast & easy.

Top Listed Textile Blogs and Websites on the Web |  Textile Today

Monday, 29 June 2020

How to write email to Professor for MSc/PhD Admission

Md. Abdullah Al Faruque
Assistant Professor, 
Department of Fabric Engineering, BUTEX
Dhaka-1208, Bangladesh

Dear Professor or Dr X,
I hope that this email will find you in good health.
This letter is a humble request for research supervision. I would like to apply for the PhD/MSc admission at the Institute/ Dept. Name in University Name. For this purpose, I need a supervisor and after thoroughly viewing the research database, I have found that you have immense experience and expertise in the area I like to pursue my PhD/MSc study. 

Tuesday, 23 June 2020

টেক্সটাইল গার্মেন্টস সেক্টরে সুবাতাস ফেরার লক্ষন উঁকি দিচ্ছে

মার্চের শুরুর দিকে করোনা ভাইরাসের কারণে ইউরোপ, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডে যখন লকডাউন শুরু হয় তখন বায়ারগন একের পর এক অর্ডার স্থগিতা/কেন্সেল করা শুরু করে। 
মার্চের শেষের দিকে এসে অর্ডার স্থগিত/কেন্সেলের পরিমান প্রায় ৫০% এ নেমে আসে। বিরাট ধাক্কা লাগে পুরো সেক্টরজুড়ে। রপ্তানি আদেশ এভাবে কমতে থাকলে গার্মেন্টস-টেক্সটাইল গুলো সচল রাখা কঠিন হয়ে যাবে।
চায়না থেকে যেসব কাপড় শিপমেন্ট হওয়ার কথা সেগুলোর শিপমেন্টও স্থগিত করার নোটিফিকেশন পাঠানো হল। এপ্রিল জুড়ে একটা হযবরল অবস্থা চলছিল।
আল্লাহর অশেষ মেহেরবানিতে মে মাসের শুরু/মাঝামাঝির দিকে এসে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ইউরোপ, আমেরিকার কিছু কিছু দেশে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হতে থাকে। সেখানকার লকডাউন পরিস্থিতি উঠে গিয়ে স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

Sunday, 21 June 2020

বৈশ্বিক করোনা প্রাদুর্ভাব এবং পোশাক শিল্প


কোভিড -১৯ (করোনা ভাইরাস) তার থাবা বসিয়েছে পৃথিবীর সর্ব্বোত্র, কেড়ে নিয়েছে এবং নিচ্ছে হাজারো জীবন। মৃত্যুর মিছিল যেন থামতেই চাচ্ছে না। থমকে গেছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। জীবন বাঁচাতে মানুষ এখন গৃহ বন্দী। ঘরের বাহিরেই যেন অপেক্ষা করছে মৃত্যু। বাধ্য হয়ে সাধারণছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। দেশের অর্থনীতি হুমকীতে পড়ার সমূহ সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে ইতিমধ্যেইঠিক এই পরিস্থিতিতে কি অবস্থা দেশের রপ্তানী খাতের প্রধান উৎস পোশাক শিল্পের? এই খাতের কারিগরদের –পোশাক শ্রমিক, বস্ত্র প্রকোশলী ও আরও যারা এই খাতের সাথে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে জড়িত- কি অবস্থা তাদের? কতটা সুরক্ষিত তারা? এই অবস্থায় এই খাতেরই বা নিরাপত্তা কতোটা?

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টরী


ইউটিউবে “The largest factory in the earth” লিখে সার্চ করলে EUPA নামের একটা ফ্যাক্টরির বেশ কয়েকটা ডকুমেন্টারি দেখতে পাবেন। হুম এটা দক্ষিন চীনে অবস্থিত। প্রায় ১৮ কি.মি. দৈর্ঘ্যের ফ্যাক্টরি এটি।  এখানে ১৭০০০ কর্মী কাজ করে। পুরো একটা শহরের সমান জায়গা দখল করে আছে এই ফ্যাক্টরীটি তাই একে Factory City বলা হয়ে থাকে। এই ফ্যাক্টরির ব্যাপারে একটা কথা প্রচলিত আছে। They live there, They eat there, Their children attend to school there. হুম ঠিকই ধরেছেন এই ফ্যাক্টরিতে কর্মরত অধিকাংশ কর্মীর জন্ম এই ফ্যাক্টরির এরিয়াতেই। এখানে তাদের বেড়ে ওঠা। এখানেই তাদের বিয়ে, সন্তান, সংসার, মৃত্যু সব। তারা প্রতি বছর মিলিয়ন মিলিয়ন ইলেক্ট্রনিক্স পন্য যেমন আইরন, কফি মেকার, চার্জার লাইট, ব্লেন্ডার ইত্যাদি তৈরী করে থাকে।

The largest factory on Earth-Texpedia
চিত্রঃ ইউপা ফ্যাক্টরী (The largest factory on Earth)
Courtesy:
Mamun Rezwan
বিঃদ্রঃ- ছবিসমূহ গুগল হতে ডাউনলোডকৃত

লোকাল পণ্যের চেয়ে ইম্পোর্ট করা পণ্যের দাম কম কেন?


মনে করুন আপনি একটি ফ্যাক্টরির মার্চেন্ডাইজিং ডিপার্টমেন্টে আছেন। প্রোডাকশন লাইনের হেড আপনাকে জানাল একটা মেশিনের পার্টস নষ্ট হয়ে যাওয়ায় একটা লাইন বন্ধ আছে। সে আপনাকে এটাও জানাল যে, এই পার্টস আমাদের দেশেও তৈরী হয় কিন্তু চীন থেকে আনালে খরচ কম পড়বে। তখন কি আপনার মনে এই চিন্তা আসবে না যে, লোকাল মার্কেটে খরচ বেশী কিভাবে হয়? বেশী হওয়ার কথাতো ইম্পোর্ট করলে। কারন ইম্পোর্টে অনেকগুলো প্রসেস পার হতে হবে।

যেমনঃ এক্সপোর্ট, ইম্পোর্টের অনুমোদন পাওয়া, কাস্টমসের ফর্মালিটি, শিপিং কস্ট ইত্যাদি। সেই হিসাবে লোকাল মার্কেটে যে জিনিসের দাম ১০০টাকা হওয়ার কথা বাইরে থেকে ইম্পোর্ট করতে গেলে সেই প্রোডাক্টের দাম মিনিমাম ১৫০ তো হওয়া উচিৎ। তাই নয় কি?

Sunday, 14 June 2020

Top 10 Online Meeting Applications | Online Conferencing Apps

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মারাত্মক প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ইতিমধ্যেই বৈশ্বিক মহামারি আকার ধারন করেছে। এর নিষ্ঠুর ছোবল থেকে রেহাই পায়নি এমনকি আমেরিকা, জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স, স্পেন সহ বিশ্বের বাঘা বাঘা দেশ গুলো পর্যন্ত। এর প্রভাবে মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ব্যবসা-বানিজ্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য সহ সকল ক্ষেত্রই। পুরো বিশ্ব যেন থেমে যেতে বাধ্য হয়েছে। কিন্তু এভাবে তো একেবারে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকলে চলবে না। সকল সীমাবদ্ধতার কথা মাথায় রেখেই ধীরে ধীরে খাপ খাইয়ে নিতে শুরু করেছে বিশ্ববাসী। ক্ষুদ্র পরিসরে হলেও আরম্ভ হচ্ছে আবার সব কিছু বিশেষ করে শিক্ষা ব্যবস্থা। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এভাবে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ হয়ে থাকলে, চরম বিপর্যয় অবশ্যম্ভাবী। তাই অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম আরম্ভ হয়েছে। শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই না বরং সম্ভব ক্ষেত্রে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গুলোও তাদের ব্যবসায়িক কার্যক্রম যতটুকু সম্ভব চালিয়ে নিচ্ছে অনলাইনে। বাংলাদেশে স্কুল পর্যায়ে টেলিভিশনে নিয়মিত বিভিন্ন শ্রেণীর ক্লাস সম্প্রচার করার মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম চলমান রাখতে সক্ষম হয়েছে। এজন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষ অবশ্যই ধন্যবাদ পাবার দাবীদার। আবার কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়েও অনলাইনে নানান এপ্লিকেশন ব্যবহারের মাধ্যমে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালু করার উদ্যোগ ইতিমধ্যেই নিয়েছে। অনলাইনে মিটিং কিংবা ক্লাস লেকচার ডেলিভারি করার জন্য অনেক গুলো জনপ্রিয় অনলাইন এপ্লিকেশন আছে। আসুন এক এক করে দেখে নিই এপ্লিকেশন গুলো কি কি?

Research Publications | Manuscript Preparation | Choosing the right Journals

একটা ম্যানুস্ক্রিপ্ট কোন ভালো মানের জার্নালে পাবলিশ করার জন্য কতগুলো বিষয়ের প্রতি অবশ্যই বিশেষ নজর দিতে হবে। নচেৎ অনেক মেধা, সময় ও শ্রম দিয়ে গবেষণা করার পরও দেখা যাচ্ছে প্রাপ্ত ফলাফল কোন ভালো এবং স্বীকৃত জার্নালে পাবলিশ হচ্ছে না।

প্রকাশিত আর্টিকেল থেকে কীভাবে ইমেজ, গ্রাফ বা টেবিল ব্যবহার করবেন?

আমরা গবেষণা পেপার বিশেষ ভাবে বলতে গেলে রিভিউ পেপার লেখার সময় প্রায়ই অন্য লেখকের প্রকাশিত আর্টিকেল থেকে বিভিন্ন গ্রাফ, ইমেজ, কিংবা টেবিল ব্যবহার করে থাকি। এই ব্যবহার করা বলতে হুবহু কপি করা কিংবা কিছুটা পরিবর্তন করে ব্যবহার করাও বুঝায়। ব্যবহার করার ক্ষেত্রে অনেকেই রেফারেন্স উল্লেখ করি না আবার অনেকেই করি। রেফারেন্স দিয়ে যদি মনে করি ব্যস হয়ে গেলো। কিন্তু আদৌ কি হয়েছে! না হয়নি। ভালো জার্নালে গবেষণা পেপার পাবলিশ করার ক্ষেত্রে শুধু রেফারেন্স দিলেই হবে না, বরং ব্যবহার করার আগে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে নিতে হয়। কারণ এগুলোর কপিরাইট রিজার্ভ করা থাকে। অনুমতি না নিয়ে পেপারে ব্যবহার করলে Plagiarism Check এ গিয়ে ধরে পরে। কপিরাইট ক্লিয়ারেন্স সেন্টার (Copyright Clearance Center) থেকে তাই কোন ইমেজ, গ্রাফ, টেবিল পুনরায় ব্যবহার করার আগে অনুমতি নিয়ে নিতে হয়। কিভাবে অনুমতি নিতে হয়, এবার আসেন ধাপে ধাপে দেখে নিই।   

Friday, 12 June 2020

How should an author respond to reviewer comments?


একটা ম্যানুস্ক্রিপ্ট অত্যন্ত যত্ন সহকারে তৈরি করে কাঙ্ক্ষিত জার্নালে সাবমিট করার পর, এক চোখ সব সময়ই ইনবক্সে পড়ে থাকে, মনের অজান্তেই ফোন আনলক করে ইনবক্স চেক করি আমরা। এই বুঝি রিভিউয়ারের কাছ থেকে এক্সেপ্টেন্স নটিফিকেশন (acceptance notification) আসলো! কিন্তু সেটা না হয়ে হঠাত যখন দেখি, রিভিশন (revision) নটিফিকেশন ইমেইল আসলো, তখন অনেক অনেক কষ্ট পেতে হয়। কিছুতেই মন রিভিউয়ারের সিদ্ধান্তটি মানতে চায় না। কারন আমাদের মতে, কাজটি একদম অরিজিনাল ছিল, জার্নালের সব রিকোয়ার্মেন্টই ফুলফিল করে সঠিক ভাবে তৈরি করেছিলাম। তারপরও কেন রিভিশন!! ইত্যাদি ইত্যাদি প্রশ্ন ঘুরপাক খেতে থাকে মনের মধ্যে। এমন অবস্থায় অনেক ক্ষেত্রেই যথাযথ রিপ্লাই দেয়া হয় না। কিন্তু ঐ সময় ঠাণ্ডা মাথায় সুন্দর সুস্পষ্ট রিপ্লাই দেয়া খুবই জরুরি। কারন গবেষণা পেপারটি প্রায় পাবলিকেশনের পথে। নচেৎ অল্পের জন্য রিজেকশন (rejection) খেতে হয়, যা আসলেই খুবই দুঃখজনক।  

Botanical Names of Cotton Fibre

1. Gossypium Herbaceum:  - Fibre length: 20mm – 26mm  - Producing country: India, China, Bangladesh  3. Gossypium Arboreum: - F...